অন্যান্য ডট কমে নতুন? অন্যান্য পরিবার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন...
avatar
0 টি পছন্দ 0 টি অপছন্দ

কীভাবে আমি একজন ভালো প্রকৌশলী হতে পারি ? বিস্তারিত জানতে চাই ?

1 টি উত্তর

0 টি পছন্দ 0 টি অপছন্দ

ভালো প্রকৌশলী হতে চাইলে কঠোর পরিশ্রম, দক্ষতা এবং ক্রমাগত শেখার মানসিকতা অপরিহার্য। প্রযুক্তি ও নতুন আবিষ্কারের প্রতি আগ্রহও থাকা উচিত। প্রকৌশলী হিসেবে সফল হতে হলে প্রথমে শিক্ষাগত যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। প্রকৌশল বিষয়ে একটি স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রী নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ। এরপর হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ ও ইন্টার্নশিপের মাধ্যমে বাস্তব অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে। প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য নতুন সফটওয়্যার ও টুলস শিখতে হবে। সমস্যা সমাধান দক্ষতা ও সৃজনশীল চিন্তা উন্নয়ন করা উচিত। এছাড়া, দলবদ্ধভাবে কাজ করার ক্ষমতা ও যোগাযোগ দক্ষতা অপরিহার্য। ক্রমাগত নতুন জ্ঞান ও প্রযুক্তির সাথে আপডেটেড থাকা একজন প্রকৌশলীর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।


প্রকৌশলী হওয়ার গুরুত্ব

প্রকৌশলী হওয়া একটি মহৎ পেশা। এই পেশায় মানুষের জীবনকে সহজ ও উন্নত করা হয়। প্রকৌশলীরা প্রযুক্তির উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখেন। তারা বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করেন। তাদের কাজের মাধ্যমে সমাজ ও অর্থনীতি সমৃদ্ধ হয়।

প্রকৌশলীর ভূমিকা ও দায়িত্ব

প্রকৌশলীরা বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সমাধান করেন। তারা নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেন। তাদের দায়িত্বের মধ্যে রয়েছে:

  • প্রকল্প পরিচালনা: প্রকৌশলীরা বিভিন্ন প্রকল্প পরিচালনা করেন। তারা সব কিছু পরিকল্পনা করেন।
  • গবেষণা ও উন্নয়ন: নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবনের জন্য গবেষণা করেন।
  • নির্মাণ কাজ: প্রকৌশলীরা নির্মাণ কাজ তত্ত্বাবধান করেন। তারা নির্মাণের সময় মান বজায় রাখেন।
  • নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ: তারা কাজের সময় নিরাপত্তা নিশ্চিত করেন।

প্রকৌশল বিদ্যার সামাজিক ও অর্থনৈতিক প্রভাব

প্রকৌশল বিদ্যার প্রভাব সমাজ ও অর্থনীতিতে বিশাল। প্রকৌশলীরা নতুন প্রযুক্তি তৈরি করেন। এই প্রযুক্তি সমাজের জীবনযাত্রা সহজ করে।

সামাজিক প্রভাব অর্থনৈতিক প্রভাব
স্বাস্থ্যসেবা উন্নত হয়। নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়।
যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হয়। উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি পায়।
শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নত হয়। বিনিয়োগের সুযোগ বৃদ্ধি পায়।

প্রকৌশলীরা উন্নয়নের কারিগর। তাদের কাজের মাধ্যমে সমাজ ও অর্থনীতি সমৃদ্ধ হয়।

শিক্ষা ও দক্ষতা অর্জন

একজন ভালো প্রকৌশলী হতে চাইলে শিক্ষা ও দক্ষতা অর্জন অপরিহার্য। প্রকৌশল ক্ষেত্রে সফল হতে হলে আপনাকে সঠিক শিক্ষা এবং প্রযুক্তিগত দক্ষতা অর্জন করতে হবে। নিচে কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিক তুলে ধরা হল যা আপনাকে একজন সফল প্রকৌশলী হতে সাহায্য করবে।

প্রকৌশল শিক্ষার পথচলা

প্রকৌশল শিক্ষার ভিত্তি হলো একটি সঠিক বিশ্ববিদ্যালয় বা কলেজ থেকে ডিগ্রী অর্জন। এই ডিগ্রী আপনাকে বেসিক জ্ঞান ও তত্ত্বগত দক্ষতা প্রদান করবে যা প্রকৌশল ক্ষেত্রে সফল হতে সাহায্য করবে।

  • সঠিক প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়া
  • প্রয়োজনীয় কোর্স সমাপ্ত করা
  • নিয়মিত পড়াশোনা ও গবেষণা করা

প্রযুক্তিগত দক্ষতা বিকাশ

প্রকৌশলী হিসেবে প্রযুক্তিগত দক্ষতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই দক্ষতা অর্জন করতে হলে আপনাকে বিভিন্ন প্রযুক্তিগত সরঞ্জাম ও সফটওয়্যার সম্পর্কে জানতে হবে।

দক্ষতা বিবরণ
প্রোগ্রামিং ভাষা সি, জাভা, পাইথন
CAD সফটওয়্যার AutoCAD, SolidWorks
প্রকল্প ব্যবস্থাপনা MS Project, Primavera

প্রযুক্তিগত দক্ষতা বিকাশের জন্য নিম্নলিখিত বিষয়গুলোর উপর জোর দিতে হবে:

  1. প্রোগ্রামিং ভাষা শেখা
  2. CAD সফটওয়্যার ব্যবহার করা
  3. প্রকল্প ব্যবস্থাপনা দক্ষতা অর্জন

এছাড়াও আপনাকে নিয়মিত নতুন প্রযুক্তি ও সরঞ্জাম সম্পর্কে জানতে হবে এবং ব্যবহার করতে হবে।

প্রযুক্তির সাথে তাল মিলানো

প্রকৌশল একটি দ্রুত পরিবর্তনশীল ক্ষেত্র। একজন ভালো প্রকৌশলী হতে হলে প্রযুক্তির সাথে তাল মিলানো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিনিয়ত নতুন প্রযুক্তি আসছে। এই প্রযুক্তিগুলির সাথে নিজেকে আপডেট রাখা জরুরি।

আধুনিক প্রযুক্তির অবগতি

বর্তমান সময়ে প্রযুক্তির পরিবর্তন দ্রুত। একজন প্রকৌশলীকে সবসময় আধুনিক প্রযুক্তির উপর অবগত থাকতে হবে। নতুন সফটওয়্যার, টুলস এবং মেশিন লার্নিং সম্পর্কে জানা উচিত।

  • নিয়মিত প্রযুক্তি সংবাদ পড়া
  • টেক ব্লগ এবং পডকাস্টে অংশগ্রহণ
  • অনলাইন কোর্স এবং ওয়ার্কশপে যোগদান

এই উপায়ে আপনি নতুন প্রযুক্তির সাথে পরিচিত হতে পারবেন।

ইনোভেশন এবং রিসার্চে উৎসাহ

একজন প্রকৌশলীকে নতুন কিছু তৈরি করতে হবে। তাই ইনোভেশন এবং রিসার্চে উৎসাহ থাকা প্রয়োজন।

  1. নতুন সমস্যার সমাধান খোঁজা
  2. নিজের গবেষণা করা
  3. দলগত কাজের মাধ্যমে নতুন আইডিয়া তৈরি

ইনোভেশন এবং রিসার্চে উৎসাহ থাকলে আপনি নতুন কিছু তৈরি করতে পারবেন।

নিচের টেবিলে কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপস দেওয়া হলো:

টিপস বর্ণনা
টেক নিউজ পড়া নিয়মিত টেক নিউজ পড়লে প্রযুক্তির আপডেট পাওয়া যাবে।
অনলাইন কোর্স অনলাইন কোর্সের মাধ্যমে নতুন প্রযুক্তি শিখতে পারবেন।
গবেষণা করা গবেষণার মাধ্যমে নতুন সমাধান খুঁজে পাবেন।

টিম ওয়ার্ক ও যোগাযোগ দক্ষতা

একজন ভালো প্রকৌশলী হতে টিম ওয়ার্ক ও যোগাযোগ দক্ষতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। প্রকৌশলীদের প্রায়ই বিভিন্ন দলের সঙ্গে কাজ করতে হয়। তাই কার্যকর যোগাযোগ এবং দলের মধ্যে সুসম্পর্ক বজায় রাখা অপরিহার্য।

দলের সাথে কাজ করা

প্রকৌশলীদের প্রায়ই বড় বড় প্রকল্পে দলের সাথে কাজ করতে হয়। সফল টিম ওয়ার্কের জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ কৌশল আছে:

  • দলের সদস্যদের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখা: দলীয় সম্পর্ক ভালো হলে কাজের মান বাড়ে।
  • সহযোগিতামূলক মনোভাব: একে অপরের সাথে সহযোগিতা করলে সমস্যা সমাধান সহজ হয়।
  • সময়ানুবর্তিতা: সময় মতো কাজ শেষ করা দলের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।
  • উদ্দীপনা ও উৎসাহ প্রদান: দলের সদস্যদের উদ্দীপিত করলে কাজের গতি বাড়ে।

কার্যকর যোগাযোগের কৌশল

যোগাযোগ দক্ষতা উন্নয়নের জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ কৌশল আছে:

  1. স্পষ্ট ও সংক্ষিপ্ত ভাষা ব্যবহার: পরিষ্কার ও সংক্ষিপ্ত ভাষায় কথা বলা উচিত।
  2. শ্রবণ দক্ষতা: অন্যদের কথা মনোযোগ দিয়ে শুনতে হবে।
  3. প্রতিক্রিয়া প্রদান: সময়মতো সঠিক প্রতিক্রিয়া প্রদান করতে হবে।
  4. দৃঢ়তা ও আত্মবিশ্বাস: আত্মবিশ্বাসী হয়ে কথা বললে অন্যরা আপনার প্রতি বিশ্বাস রাখবে।


সমস্যা সমাধানের ক্ষমতা

একজন ভালো প্রকৌশলী হতে হলে সমস্যা সমাধানের ক্ষমতা অপরিহার্য। এটি কেবল সমস্যার সমাধান নয়, বরং সমস্যা চিন্তা করে সমাধানের কৌশল খুঁজে বের করা। নিচে কিছু মূল দক্ষতা তুলে ধরা হলো যা একজন প্রকৌশলীকে সমস্যার সমাধানে সহায়ক হবে।

যুক্তিবিজ্ঞান ও সৃজনশীল চিন্তাভাবনা

যুক্তিবিজ্ঞানসৃজনশীল চিন্তাভাবনা একজন প্রকৌশলীর জন্য অপরিহার্য। যুক্তিবিজ্ঞান আপনাকে সঠিক পথনির্দেশনা দেয় এবং সৃজনশীল চিন্তাভাবনা নতুন সমাধান খুঁজে পেতে সহায়তা করে।

  • যুক্তিবিজ্ঞান: সমস্যার কারন বিশ্লেষণ করতে সহায়ক।
  • সৃজনশীল চিন্তাভাবনা: সমস্যা মোকাবেলার নতুন পন্থা উদ্ভাবন করতে সহায়ক।

এই দুটি দক্ষতা একত্রে কাজ করে আপনাকে দ্রুত ও কার্যকরী সমাধান খুঁজে পেতে সাহায্য করবে।

জটিল প্রকল্প পরিচালনা

জটিল প্রকল্প পরিচালনা একজন প্রকৌশলীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এটি আপনাকে বড় এবং বহুস্তরীয় প্রকল্পগুলি সঠিকভাবে পরিচালনা করতে শেখায়।

  1. পরিকল্পনা: প্রতিটি ধাপ পরিকল্পনা করা।
  2. সময় ব্যবস্থাপনা: সময়মত প্রকল্প সম্পন্ন করা।
  3. দল পরিচালনা: দলের সদস্যদের সঠিকভাবে পরিচালনা করা।

এই দক্ষতাগুলি আপনাকে প্রকল্প পরিচালনায় সক্ষম করে তুলবে এবং আপনার সমস্যার সমাধান ক্ষমতা বাড়াবে।

দক্ষতা গুরুত্ব
যুক্তিবিজ্ঞান সমস্যার মূল কারণ বিশ্লেষণ
সৃজনশীল চিন্তাভাবনা নতুন সমাধান উদ্ভাবন
পরিকল্পনা প্রকল্পের প্রতিটি ধাপ নির্ধারণ
সময় ব্যবস্থাপনা প্রকল্প সময়মত সম্পন্ন
দল পরিচালনা দলের সদস্যদের সঠিকভাবে পরিচালনা

কীভাবে আমি একজন ভালো প্রকৌশলী হতে পারি ? বিস্তারিত জানতে চাই ?

কর্মজীবনে উন্নতি

প্রকৌশলী হিসেবে সফল হতে চাইলে কর্মজীবনে উন্নতি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যত বেশি দক্ষতা ও জ্ঞান অর্জন করবেন, ততই আপনি আপনার ক্যারিয়ারে উন্নতি করতে পারবেন। নিচে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হয়েছে কীভাবে আপনি আপনার কর্মজীবনে উন্নতি করতে পারেন।

ক্যারিয়ার গ্রোথ ও লার্নিং পাথ

প্রকৌশলী হিসেবে ক্যারিয়ার গ্রোথের জন্য ধারাবাহিক লার্নিং আবশ্যক। নিত্যনতুন প্রযুক্তি ও টুলস শিখে নিজেকে আপডেট রাখুন।

  • কোর্স ও সার্টিফিকেশন: বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে কোর্স ও সার্টিফিকেশন নিন।
  • কনফারেন্স ও সেমিনার: বিভিন্ন কনফারেন্স ও সেমিনারে অংশগ্রহণ করুন।
  • প্রকল্পে কাজ: বিভিন্ন প্রকল্পে কাজ করে অভিজ্ঞতা অর্জন করুন।

নতুন কিছু শিখতে হলে নিজের কৌতূহল ও আগ্রহ ধরে রাখুন। আপনার শেখার পাথ নির্ধারণ করুন এবং তাতে কঠোর পরিশ্রম করুন।

নেটওয়ার্কিং এবং মেন্টরশিপের গুরুত্ব

  • নেটওয়ার্কিং: বিভিন্ন পেশাদার নেটওয়ার্কিং ইভেন্টে অংশগ্রহণ করুন।
  • মেন্টরশিপ: একজন অভিজ্ঞ মেন্টর খুঁজে নিন।
  • প্রফেশনাল গ্রুপে যোগদান: বিভিন্ন প্রফেশনাল গ্রুপ ও কমিউনিটিতে যোগ দিন।

নেটওয়ার্কিং ও মেন্টরশিপের মাধ্যমে আপনি নতুন আইডিয়া ও সুযোগ পাবেন। এতে আপনার ক্যারিয়ার গ্রোথ হবে দ্রুত।

উন্নতির উপায় বর্ণনা
কোর্স ও সার্টিফিকেশন অনলাইন কোর্স ও সার্টিফিকেশন সম্পন্ন করুন।
কনফারেন্স ও সেমিনার বিভিন্ন কনফারেন্স ও সেমিনারে অংশগ্রহণ করুন।
প্রকল্পে কাজ বিভিন্ন প্রকল্পে কাজ করে অভিজ্ঞতা অর্জন করুন।
নেটওয়ার্কিং পেশাদার নেটওয়ার্কিং ইভেন্টে অংশগ্রহণ করুন।
মেন্টরশিপ একজন অভিজ্ঞ মেন্টর খুঁজে নিন।
প্রফেশনাল গ্রুপে যোগদান বিভিন্ন প্রফেশনাল গ্রুপ ও কমিউনিটিতে যোগ দিন।


পেশাদার উন্নয়ন ও লাইসেন্সিং

একজন ভালো প্রকৌশলী হতে চাইলে পেশাদার উন্নয়ন ও লাইসেন্সিং অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এটি কেবলমাত্র আপনার দক্ষতা উন্নত করবে না, বরং চাকরির বাজারে আপনার প্রতিযোগিতা সক্ষমতাও বৃদ্ধি পাবে।

প্রফেশনাল ইঞ্জিনিয়ার (pe) সার্টিফিকেশন

প্রফেশনাল ইঞ্জিনিয়ার (PE) সার্টিফিকেশন নেওয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। এটি আপনাকে প্রকৌশলী হিসাবে বৈধতা প্রদান করে।

  • প্রথমে, আপনাকে একটি যোগ্য প্রকৌশল ডিগ্রি অর্জন করতে হবে।
  • দ্বিতীয়ত, প্রাকটিক্যাল অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে। সাধারণত, চার বছর কাজের অভিজ্ঞতা প্রয়োজন হয়।
  • তৃতীয়ত, PE পরীক্ষা উত্তীর্ণ হতে হবে। এটি একটি কঠিন পরীক্ষা, তাই প্রস্তুতি নিতে হবে।

চাকরির বাজারে প্রতিযোগিতা ও সাফল্য

লাইসেন্সিং এবং সার্টিফিকেশন আপনাকে চাকরির বাজারে প্রতিযোগিতামূলক করে তোলে।

নিম্নলিখিত টেবিলটি দেখুন:

পদক্ষেপ বিস্তারিত
ডিগ্রি অর্জন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকৌশল ডিগ্রি নিন।
অভিজ্ঞতা অর্জন কাজের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় অভিজ্ঞতা অর্জন করুন।
PE পরীক্ষা PE পরীক্ষা উত্তীর্ণ হন।

এছাড়াও, নেটওয়ার্কিং এবং প্রকৌশলী সমিতিতে যোগদান করাও গুরুত্বপূর্ণ। এটি আপনাকে পেশাদার যোগাযোগ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে।

কীভাবে আমি একজন ভালো প্রকৌশলী হতে পারি ? বিস্তারিত জানতে চাই ?

Credit: washingtonstem.org

আত্ম-উন্নয়ন ও সার্বজনীন মূল্যবোধ

একজন ভালো প্রকৌশলী হতে হলে কেবল প্রযুক্তিগত দক্ষতা নয়, আত্ম-উন্নয়ন ও সার্বজনীন মূল্যবোধও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই গুণাবলী না থাকলে, প্রকৌশলীর সাফল্য অসম্পূর্ণ থেকে যায়। প্রকৌশলের জগতে নিজেকে উন্নত করার জন্য, বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিক বিবেচনা করতে হবে।

আত্ম-শিক্ষা ও আত্ম-প্রতিফলন

প্রথমত, আত্ম-শিক্ষা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। নতুন প্রযুক্তি এবং পদ্ধতির সাথে নিজেকে আপডেট রাখতে হবে। নতুন বিষয় শেখার জন্য বিভিন্ন অনলাইন কোর্স এবং ওয়ার্কশপে অংশগ্রহণ করা উচিত।

দ্বিতীয়ত, আত্ম-প্রতিফলনও গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিদিন নিজের কাজের উপর পর্যালোচনা করুন। কোথায় উন্নতির সুযোগ আছে তা চিন্তা করুন। নিজের ভুল থেকে শিক্ষা নিন এবং তা শুধরে নিন।

পেশাগত নীতি ও নৈতিকতা

একজন প্রকৌশলী হিসেবে, পেশাগত নীতি ও নৈতিকতা মেনে চলা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কাজের প্রতিটি ধাপে সততা ও সতর্কতা বজায় রাখতে হবে।

গ্রাহকের প্রতি দায়িত্বশীল হতে হবে। প্রকল্পের সময়সীমা এবং বাজেট মেনে চলতে হবে। অন্যের সাথে সহযোগিতামূলক আচরণ করতে হবে।

একটি টেবিলের মাধ্যমে পেশাগত নীতি ও নৈতিকতার গুরুত্বপূর্ণ দিকগুলো উপস্থাপন করা হলো:

নীতি বর্ণনা
সততা সত্য ও সঠিক তথ্য প্রদান করা
দায়িত্বশীলতা নিজের কাজের জন্য জবাবদিহি করা
সময়ানুবর্তিতা সময়সীমা মেনে চলা
সহযোগিতা টিমের সাথে মিলেমিশে কাজ করা


Frequently Asked Questions

একজন প্রকৌশলী হিসেবে আপনাকে কী বলে?

একজন প্রকৌশলী হিসেবে আমাকে সমাধান প্রদানকারী, প্রযুক্তিগত দক্ষ এবং সমস্যা সমাধানের বিশেষজ্ঞ বলা হয়।


ইঞ্জিনিয়ার হতে হলে কতটুকু স্মার্ট হওয়া যায়?

ইঞ্জিনিয়ার হতে স্মার্ট হতে হবে কিন্তু অতিরিক্ত স্মার্ট হওয়ার প্রয়োজন নেই। কঠোর পরিশ্রম ও সৃজনশীলতা গুরুত্বপূর্ণ।


কিভাবে বুঝবো আমি একজন ভালো ইঞ্জিনিয়ার?

তুমি ভালো ইঞ্জিনিয়ার কিনা তা বোঝার জন্য সমস্যার সমাধানে দক্ষতা, দলবদ্ধ কাজের মানসিকতা এবং সময়মতো প্রকল্প সম্পন্ন করার ক্ষমতা দেখো। নিয়মিত আপডেট হওয়া ও নতুন প্রযুক্তি শেখার আগ্রহ থাকলে তুমি ভালো ইঞ্জিনিয়ার।


একজন ভালো ইঞ্জিনিয়ার কে হতে পারে?

একজন ভালো ইঞ্জিনিয়ার হতে হলে সমস্যা সমাধান দক্ষতা, সৃজনশীলতা এবং টিমওয়ার্কে পারদর্শী হতে হয়। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে গভীর আগ্রহ থাকা জরুরি। পাঠ্যবইয়ের পাশাপাশি হাতে-কলমে কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে। নিয়মিত নতুন প্রযুক্তি ও জ্ঞান অর্জনেও আগ্রহী হতে হবে।


Conclusion

ভালো প্রকৌশলী হতে হলে অধ্যবসায়, কঠোর পরিশ্রম ও সঠিক দিকনির্দেশনা প্রয়োজন। নিয়মিত শিখতে ও নতুন প্রযুক্তি আয়ত্ত করতে হবে। অভিজ্ঞ প্রকৌশলীদের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়ান। প্রকল্পে অংশগ্রহণ করুন এবং বাস্তব অভিজ্ঞতা সংগ্রহ করুন। এভাবে আপনি একজন দক্ষ ও সফল প্রকৌশলী হয়ে উঠতে পারবেন।

এরকম আরও প্রশ্ন

0 টি পছন্দ 0 টি অপছন্দ
আমি একজন বেকার, কি করতে পারি আমি?

আমি বেকার বসে আছি। বেকার জীবন থেকে মুক্তি চাই। এর জন্য আমি কি করতে পারি? কিভাবে টাকা ইনকাম করবো?


image
0 টি পছন্দ 0 টি অপছন্দ
ভালো চাকরি পেতে কি করতে হবে ? কীভাবে আমি চাকরি করে সাবলম্বী হবো ?
0 টি উত্তর
0 টি পছন্দ 0 টি অপছন্দ
একজন মানুষ কখন সাবলম্বী হতে শিখে ?
0 টি পছন্দ 0 টি অপছন্দ
পড়ালেখায় ভালো করতে হলে কি করতে হবে ? বিস্তারিত বলুন ?
0 টি উত্তর
অন্যান্য ডট কম বাংলাদেশের ও বাংলা ভাষায় একটি প্রশ্ন-উত্তর ভিত্তিক পরিবার। অন্যান্য কমিউনিটির সদস্যরা একে অপরের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করে থাকে। অন্যান্য পরিবারের সদস্য না হয়ে থাকলে এখনই রেজিস্টার করুন।
...